এবার তারেককে নিয়ে বোমা ফাটালেন বি. চৌধুরী

এবার বিএনপির সিনিয়র নেতাদের সামনেই তারেক জিয়া এবং বিএনপির ভুল-ত্রুটির ব্যাপক সমালোচনা করলেন এক সময়ে দলটির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমানে বিকল্প ধারা বাংলাদেশ এর সভাপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।সম্প্রতি রাজধানীর একটি হোটেলে যুক্তফ্রন্ট আয়োজিত একটি ইফতার পার্টিতে বক্তৃতাকালে তিনি তারেক রহমানের ভুলের সমালোচনায় মুখর হয়ে ওঠেন। বিএনপির শাসনামলে তারেক রহমানের সরাসরি সন্ত্রাস ও দুর্নীতির পৃষ্ঠপোষকতার জন্য তার এমন পরিণতি হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

অধ্যাপক চৌধুরী বলেন, অতীতে আমরা গুম-খুন দেখেছি। বোমা হামলাও দেখেছি। আমাদের বিগত শাসনামলে জনগণ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল। তাই তারা ভোটের মাধ্যমে এসব অন্যায়ের প্রতিবাদ করেই আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায় এনেছে। এদেশের মানুষ অন্যায়, দুর্নীতিকে ঘৃণা করে। একই সাথে অপরাধী ও দুর্নীতিবাজও চরমভাবে ঘৃণিত এই দেশে।ইফতার পার্টিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস এবং ড. আবদুল মঈন খান উপস্থিত ছিলেন।

ড. খন্দকার মোশাররফ, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, নজরুল ইসলাম খান এবং গয়েশ্বর চন্দ্র রায় আমন্ত্রিত হয়েও ইফতারে উপস্থিত হননি।আশ্চর্যের বিষয় হল এদিন বদরুদ্দোজা চৌধুরী কারাবন্দী বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি বা মুক্তির আন্দোলন বিষয়ে কোন কথাই বলেননি। পুরো বক্তৃতায় আওয়ামী লীগের পাশাপাশি বিএনপির সমালোচনা করেন সাবেক এই বিএনপি নেতা।

বদরুদ্দোজার এমন আলোচনা বিষয়ে আওয়ামী লীগের এক সিনিয়র নেতা বলেন, বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন বা তারেক রহমনাই বলেন, সবাই এক ঘাটেরই মাঝি। আতে ঘাঁ লাগায় এতদিন মুখ দেখাদেখি বন্ধ ছিল।ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে তারেক রহমান বদরুদ্দোজা চৌধুরীকে রীতিমত শায়েস্তা করেন। তারই হয়ত প্রতিশোধ নিচ্ছেন বদরুদ্দোজা চৌধুরী।মজার বিষয় হল প্রতিশোধ নিতে গিয়ে উভয়েই নিজেদের অপকর্ম অকপটে স্বীকার করছেন জাতির কাছে। হাড়ের ভাগ নিয়ে কুকুরে কুকুরে লড়াই চলছে।

amardesh247.com