আজান শুনেও মসজিদে না গেলে কি নামাজ হবে?

প্রশ্ন :যদি আজান শুনেও মসজিদে না গিয়ে ঘরে নামাজ পড়ি, তাহলে কি নামাজ হবে? নাকি মসজিদে গিয়েই নামাজ আদায় করতে হবে?

উত্তর : ওয়াজিব হলো আপনি মুসলিম ভাইদের সঙ্গে মসজিদে গিয়ে নামাজ পড়বেন। কারণ, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি আজান শুনেও মসজিদে এলো না, তার নামাজ হবে না। হ্যা, যদি কোনো অপারগতা থাকে।’

একদিন এক অন্ধ ব্যক্তি এসে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বললেন, হে আল্লাহর রাসুল, আমাকে মসজিদে আনার মতো কেউ নেই। এমতাবস্থায় আমার জন্য কি ঘরে নামাজ পড়ার অনুমতি আছে? নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার উদ্দেশে বললেন, তুমি কি নামাজের আজান শুনতে পাও? লোকটি বলল, জী। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, তাহলে সে ডাকে সাড়া দাও (অর্থাৎ মসজিদে এসে নামাজ পড়ো)।

এবার ভেবে দেখুন তো, একজন অন্ধ ব্যক্তি যাকে মসজিদে নিয়ে যাওয়ার মতো কেউ নেই, এমন ব্যক্তিকেও নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মসজিদে আসার আদেশ দিয়েছেন। তাকে ঘরে নামাজ পড়ার অনুমতি দেননি। তাহলে দৃষ্টিসম্পন্ন সামর্থ্যবান ব্যক্তিরা কিভাবে অজুহাত দাঁড় করাবে?

অতএব হে প্রশ্নকারী ভাই, আল্লাহকে ভয় করুন। অলসতা থেকে বেঁচে থাকুন। দূরে থাকুন মুনাফিকদের মতো হওয়া থেকে।

অবশ্য আজান শুনে মসজিদে না গিয়ে ঘরে নামাজ পড়লে নামাজ হবে কিনা এ বিষয়ে আলেমরা দুই ধরনের মত পোষণ করেন : প্রথমত. নামাজ হবে তবে সঙ্গে গুনাহের বোঝাও বহন করতে হবে। এটিই সঠিক মত। দ্বিতীয়ত. নামাজ হবে না। তাকে বরং জামাতেই নামাজ পড়তে হবে। জামাত ছাড়া নামাজ শুদ্ধ হবে না।

তবে প্রথমটিই বিশুদ্ধ। নামাজ হবে ঠিক। কিন্তু সঙ্গে গুনাহও লেখা হবে। এমন ব্যক্তির কর্তব্য তওবা করা এবং জামাতে নামাজে ধারাবাহিক হওয়া। আল্লাহ আপনাকে তাওফিক দান করুন।

সৌদি আরবের সাবেক গ্রান্ড মুফতি শায়খ আবদুল আজিজ বিন আবদুল্লাহ বিন বায (রহ.) এর ফতোয়া

অবলম্বনে: আলী হাসান তৈয়ব