মেসি – আর্জেন্টিনারা কি বাংলাদেশ চিনেন ?

তিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে ফুটবল উত্তেজনা। সম্প্রতি রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮ -কে ঘিরে ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন পুরো বিশ্ব, পিছিয়ে নেই বাংলাদেশও। নিজ নিজ অবস্থান থেকে প্রিয় দলকে সাপোর্ট করতে মরিয়া বাংলাদেশি সমর্থকরা। তাই এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে যেনো কথার লড়াইয়ে নিজ নিজ দলকে এগিয়ে রাখছেন অনেকেই…

অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, যাদের জন্য ফুটবলপ্রেমীরা অক্লান্ত ঘাম ঝরাচ্ছেন, তাঁরা কিভাবে বাংলাদেশ সম্পর্কে জানেন? তাছাড়া কিভাবেই বা বাংলাদেশকে চিনেন? তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, মেসি এবং আর্জেন্টিনা কিভাবে বাংলাদেশকে চিনেন !

২০১১ সালে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয় আর্জেন্টিনা বনাম নাইজেরিয়া’র প্রীতি ফুটবল ম্যাচ (ফ্রেন্ডলি)। সেদিন ছিল সেপ্টেম্বরের ৬ তারিখ, রোজ মঙ্গলবার। রাজধানী ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের গ্যালারি তখন কানায় কানায় পরিপূর্ণ ! কারণ মাঠে খেলবেন ফুটবল রাজপুত্র লিওনেল মেসি !
এর আগে ৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ফুরফুরে মেজাজে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেন মেসি বাহিনী। পরদিন নাইজেরিয়ার সঙ্গে সেই ঐতিহাসিক ম্যাচ। সেদিন ভিনগ্রহের যাদুকরকে নিজ চোখে দেখতে স্টেডিয়ামের ভিতরে- বাহিরে জড়ো হতে থাকেন হাজার হাজার ফুটবল ভক্তরা। ম্যাচ পরিসংখ্যানে মেসি গোল না পেলেও গোল করিয়েছিলেন ঠিকই। ফলাফলে ০৩ – ০১ এ ম্যাচ জিতে নেয় আলবিসেলেস্তে’রা। এরপর রাতে মেসি উপভোগের স্বাদ নিয়ে ঘরে ফেরেন দর্শকরা…

মেসি বিদায় বেলায় প্রশংসায় ভাসিয়ে যান বাংলাদেশকে। জানিয়ে যান বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সবুজ ঘাসে খেলার অভিজ্ঞতা !

সুত্র ঃ ছাড়পোকা