‘শেখ হাসিনা কি তাঁর লতিফ ভাইকে বাদ দিয়ে নির্বাচন করবে?’

আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত নেতা আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী বলেছেন, ‘দল যদি মনোনয়ন দেয়, তাহলে আগামী নির্বাচন করবো। শেখ হাসিনা কি তাঁর লতিফ ভাইকে বাদ দিয়ে নির্বাচন করবে? বাংলা ইনসাইডারের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং সাবেক মন্ত্রী। ২০১৪ সালে ৩০ সেপ্টেম্বর তাঁকে মন্ত্রিত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। পরবর্তীতে দল থেকে তিনি বহিষ্কৃত হন। নিউইয়র্কে এক অনুষ্ঠানে হজ নিয়ে একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তাঁর বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়। ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর তিনি জাতীয় সংসদ থেকেও পদত্যাগ করেন।

পদত্যাগের পর তিনি একরকম অবসর জীবন যাপন করেন। এ প্রসঙ্গে এই আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা বলেন, ‘আমি জানি বেঁচে থাকলে আমাকে আরও কাজ করতে হবে। তাই এই অখণ্ড অবসর সময়টাকে উপভোগ করেছি, বই পড়েছি।’

সম্প্রতি ছাত্রলীগের সম্মেলনে যোগ দিয়ে আলোচিত হন লতিফ সিদ্দিকী। দলে নেই তারপরও কেন ছাত্রলীগের সম্মেলনে গেলেন, এমন প্রশ্নের উত্তরে লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘আমার জন্ম ছাত্রলীগে। জেলে না থাকলে ছাত্রলীগের প্রতিটা সম্মেলনে গেছি। এবার যাব না কেন?’ তিনি বলেন, ‘আমি ভাবলাম বসতে না দিলে দাঁড়িয়ে থাকবো। কিন্তু আমার সংগঠনের সম্মেলনে আমি থাকবো না, তা কি করে হয়।’

আওয়ামী লীগের দু:সময়ের কাণ্ডারি এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আমার অস্তিত্ব, আমার রক্ত। আমাকে আওয়ামী লীগ থেকে বাদ দেবে কে?’ তিনি বলেন, ‘আমি যেমন আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে যেতে পারবো না, শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে যেতে পারবো না। তেমনি শেখ হাসিনাও আমার বিরুদ্ধে যেতে পারবেন না।’

লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘এলাকায় যাচ্ছি। চমৎকার সময় কাটাচ্ছি।’

বাংলা ইনসাইডার/