ছাত্র্রলীগ নেতাকে আপত্তিকর অবস্থায় পেয়ে গণধোলাই

লক্ষ্মীপুরে রাকিব হোসেন বিপ্লব নামের এক ছাত্র্রলীগ নেতাকে আপত্তিকর অবস্থায় পেয়ে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। রাকিব কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বলে জানা গেছে। শনিবার রাতে সদর উপজেলার চরউভূতির চকবাজার এলাকার আবদুল জাহেরের বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।স্থানীয়রা ও পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে চরউভূতির চকবাজার এলাকার ব্যবসায়ী আবদুল জাহেরের স্ত্রীর সঙ্গে রাকিব হোসেন বিপ্লবের অবৈধ সর্ম্পক চলছিল।

বিষয়টি জেনেও স্থানীয়রা ভয়ে প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি। শনিবার রাতে বিষয়টি টের পেয়ে মুসল্লিরা নামাজ শেষে ওই ব্যবসায়ীর বাড়ি ঘেরাও করেন। এ সময় রাকিব ও নারীকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে গণধোলাই দিয়ে তারা পুলিশে সোর্পদ করেন।সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, ‘রাকিব হোসেন বিপ্লব ও ওই নারীকে উদ্ধার করে শনিবার রাতেই থানায় নিয়ে আসা হয়। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

স্ত্রীকে ফিরিয়ে এনে না দেয়ায় বাবাকে খুন:টাঙ্গাইলে স্ত্রীকে ফিরিয়ে এনে না দেয়ায় বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন ছেলে। নিহতের নাম জব্বার আলী(৬৫)। শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার কাচিনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হত্যার অভিযোগে রবিবার সকালে ছেলে বিল্লাল হোসেনকে (২৮) আটক করা হয়েছে।কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বলেন, বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী কিছুদিন পূর্বে বাড়ি থেকে চলে যান।

স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনার জন্য বিল্লাল হোসেন তার বাবাকে চাপ দিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ বাধে। শনিবার দিবাগত রাতে জব্বার আলীকে ঘর থেকে বাইরে ডেকে এনে ছেলে বিল্লাল হোসেন তাকে কুপিয়ে হত্যা করেন। রবিবার সকালে জব্বার আলীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। অভিযুক্ত ছেলে বিল্লাল হোসেনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শুকুর মামুদ বলেন, বিল্লাল হোসেনের অত্যাচারে তার স্ত্রী চলে গেছেন। এর আগেও তিনি এলাকায় বেশ কয়েকটি দুর্ঘটনা ঘটিয়েছেন।-ঢাকাটাইমস,সবাইকে জানিয়ে দিতে নিউজটি অবশ্যই শেয়ার করুন