‘ওঁদের আলাদা করে চাইবার কিছু নেই’

পশ্চিমবঙ্গের মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী আমাকে ভালবাসেন, আমিও খুব ভালবাসি। আমাদের যখনই দেখা হয়, আমরা অনেক কথা বলি। ওঁরা যথেষ্ট ভালো আছেন। ভালো করছেন। ভালো করবেন, এটা আমি বিশ্বাস করি। ওঁদের আলাদা করে চাইবার কিছু নেই।’শনিবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতার তাজ বেঙ্গল হোটেলে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সঙ্গে একঘণ্টা রুদ্ধদ্বার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে জবাবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল বাংলাদেশের পক্ষ থেকে কোনো বিশেষ অনুরোধ করা হয়েছিল কিনা। খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের মুখ্যমন্ত্রী তাঁর সঙ্গে হাসিনার ব্যক্তিগত সম্পর্কের কথাই বেশি বলেছেন। তিনি বলেন, ‘হাসিনাজির সঙ্গে আমার সম্পর্ক একেবারে ব্যক্তিগত স্তরে। দীর্ঘ বিশ-পঁচিশ বছর ধরে। হাসিনাজির বোন রেহানা থেকে শুরু করে পরিবারের সবাইকে আমি চিনি। তিনি যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন না, যখন বিরোধী নেত্রী ছিলেন, তখনো তাঁর সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ছিল। এটা আছে, এটা থাকবে।’’

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বৈঠক খুব ভালো হয়েছে। এ-পার বাংলার সঙ্গে ও-পার বাংলার বৈঠক সব সময়ই ভালো হয়। আমাদের সম্পর্ক সৌজন্যমূলক, বন্ধুত্বপূর্ণ। দুই দেশের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আমরা সব সময় আলোচনাকরি। শিক্ষা, সংস্কৃতি ও বাণিজ্য ক্ষেত্রে দু’দেশের সম্পর্ক কী ভাবে উন্নত করা যায়, এগুলি নিয়েই কথা হয়েছে।’বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শেষ মুহূর্তে একান্ত বৈঠকে বসেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। ওই বৈঠকে মমতাকে বাংলাদেশে যাবার আমন্ত্রণও জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী।

সূত্র: আনন্দবাজার