ছাত্রলীগে সোহাগ-জাকির এখন ডানাকাটা পাখি!

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯ তম জাতীয় সম্মেলন শেষ হয়েছে চলতি মাসের ১২ তারিখ। কিন্তু এখনো অবদি নতুন কমিটির নেতৃত্ব ঘোষণা করেননি আওয়ামী লীগ সভানেত্রী, প্রধানমন্ত্রী ও ছাত্রলীগের সাংগঠনিক নেতা শেখ হাসিনা।

ছাত্রলীগের মধ্যে শিবির ও ছাত্রদলের যে অনুপ্রবেশ ঘটেছে তা দূর করতে এবং যোগ্য, আদর্শিক নেতৃত্ব নির্বাচনের জন্য যথেষ্ট সময় নিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শেষ মুহুর্তে গোয়েন্দা সংস্থাগুলো আবারো মাঠে নেমেছে সম্ভাব্য প্রার্থীদের খোঁজ খবর নিতে। চলতি সপ্তাহেই নতুন কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘনিষ্ঠ কয়েকটি সূত্র।

এদিকে, ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক হওয়া কমিটির সভাপতি এম সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন এখানো দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। তবে তারাা এখন ডানাকাটা পাখির মতো চলছেন।

সরেজমিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনসহ বিভিন্নস্থানে ঘুরে দেখা গেছে, সোহাগ-জাকিরের পাশে তেমন কোনো নেতাকর্মী এখন আর নেই। আগের মতো তাদেরকে যে প্রটোকল দেয়া হতো তা আর এখন পাচ্ছেন না।

অন্যদিকে, ছাত্রলীগের শীর্ষ পদের প্রার্থী হিসাবে ইতিমধ্যেই আদিত্য নন্দী ও রিজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন মধুর ক্যান্টিনে নিয়মিত শোডাউন করে যাচ্চেন। নিজেদের আগামী দিনে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসাবে জাহির করতেই ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। বহিরাগত অনেককে সাথে নিয়ে এমন শোডাউন করা নিয়ে খোদ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যেই হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকে বলছেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দেয়ার আগেই যারা এমন আত্নপ্রচারণা করছেন তাতে করে নিজেদের বিতর্কিতই করছেন।

উৎসঃ ভোরের পাতা