শিক্ষাব্যবস্থাকে নাস্তিক তৈরির কারখানা বানানোর ষড়যন্ত্র করছে সরকার : আব্দুর রহমান মূসা।

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্র্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের ভারপ্রাপ্ত আমির আব্দুর রহমান মূসা বলেছেন, ‘সরকার নেতৃত্বশূণ্য করে দেশকে করদরাজ্য বানানোর জন্যই ইসলাম ও ইসলামী মূল্যবোধকে বিশেষভাবে টার্গেট করেছে। সে ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই তারা দেশের শিক্ষাব্যবস্থাকে নাস্তিক তৈরির কারখানা বানানোর গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।’

শুক্রবার সকালে রাজধানীর একটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের শেরেবাংলা নগর উত্তর থানা আয়োজিত এক ওয়ার্ড দায়িত্বশীল সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

আব্দুর রহমান মূসা বলেন, ‘সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশের গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ধ্বংস করে দিয়ে কথিত নির্বাচনের নামে চর দখলের মহড়া প্রদর্শন করেছে। দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে এই ফ্যাসীবাদী ও বাকশালী সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় করতে হবে।

তিনি সরকারের পতন ঘটাতে রাজপথে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘আমরা সকলেই আল্লাহর সৈনিক। জমিন আল্লাহর, সুতরাং আইনও চলবে আল্লাহর। তাই আল্লাহর জমিনে আল্লাহর আইন প্রতিষ্ঠার কাজে আঞ্জাম দেয়ার জন্য প্রত্যেককে সর্বোচ্চ ত্যাগ ও কুরবানি শপথ গ্রহণ করতে হবে। দ্বীন প্রতিষ্ঠার প্রত্যয়ে শাহাদাতের তামান্না নিয়ে ময়দানে থাকতে হবে আপসহীন। জীবনের সকল ক্ষেত্রে কোরআন ও সহিহ সুন্নাহর অনুসরণ করতে হবে। এর জন্য প্রতিটি ঘরে ঘরে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছানো দরকার। আর এতেই রয়েছে বিশ্বমানবতার ইহকালীন কল্যাণ ও পরকালীন মুক্তি।’

থানা আমির আব্দুল আউয়াল আজমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা মহানগরী উত্তরের কর্মপরিষদ সদস্য এবং প্রচার-মিডিয়া সম্পাদক মু. আতাউর রহমান সরকার। উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদপুর অঞ্চলের টিম সদস্য আব্দুল হান্নান, থানা সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম, থানা কর্মপরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির, হাফেজ শাহজাহান, হাফেজ সাইফুল ইসলাম শরীফ, মঞ্জুরুল ইসলাম ও ইফতেখার সুজন প্রমুখ।

তুরাগ মধ্য থানায় অগ্রসরকর্মী শিক্ষা বৈঠক
জামায়াতে ইসলামী তুরাগ মধ্য থানার উদ্যোগে অগ্রসরকর্মীদের শিক্ষা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। থানা আমির গাজী মনির হোসাইনের সভাপতিত্বে ও নায়েবে আমির কামরুল হাসানের পরিচালনায় বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন উত্তরা পশ্চিম অঞ্চলের সহকারী পরিচালক মাহবুবুল আলম। উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা মাওলানা মুসলেম উদ্দীন আলমগীর, মাওলানা আব্দুল বারী, ডাক্তার কেরামত আলী ও মেহেদী হাসান প্রমুখ।

উত্তরা পূর্ব থানায় শীতবস্ত্র বিতরণ
রাজধানীর একটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ জামায়াতে ঢাকা মহানগরী উত্তরের উত্তরা পূর্ব থানার উদ্যোগে শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। থানা আমির ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের মজলিসে শূরা সদস্য মাহফুজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম। উপস্থিত ছিলেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল মুজাহিদ ও জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

ভাটারায় শীতবস্ত্র বিতরণ
ভাটারা থানায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। থানা আমির আবু আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগরী উত্তরের সেক্রেটারী ড. মুহাম্মদ রেজাউল করীম। থানা সেক্রেটারি মো: আব্দুল্লাহর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবক মাওলানা আবুল কাসেম ও ছাত্রনেতা মাসুদ প্রমুখ।

মোহাম্মদপুর পূর্ব থানায় জামায়াতের শীতবস্ত্র বিতরণ
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী মোহাম্মদপুর পূর্ব থানার উদ্যোগে শীতার্থ মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের কর্মপরিষদ সদস্য জিয়াউল হাসান। উপস্থিত ছিলেন থানা প্রচার সম্পাদক মাহমুদুল হক রোমান, দাওয়া ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, ওয়ার্ড সভাপতি মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, জামায়াত নেতা ডা. সাইদুর রহমান ও ইঞ্জিনিয়ার মোরশেদ আলম প্রমুখ।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি