জামায়াত তার সাধ্যমতো গরীব-দুঃখী পরিবারের মাঝে সহায়তা দিচ্ছে-মাওলানা আবদুল হালিম

শনিবার ২৬ নভেম্বর উত্তর জনপদ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রামের আঙ্গুরপোতায় জামায়াতে ইসলামীর আর্থিক সহায়তায় নির্মিত ঘর পরিদর্শন, শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল ও তিস্তা উপকূলের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা আবদুল হালিম।

এ সময় তিনি বলেন, “দেশের উত্তরাঞ্চলে তাপমাত্রা হ্রাস পাওয়ায় জনজীবনে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। কিন্তু শীতার্ত পরিবারের কল্যাণে সরকার কোনো জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। এমতাবস্থায় একটি দায়িত্বশীল এবং আদর্শিক দল হিসেবে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী নির্লিপ্ত থাকতে পারে না। আমীরে জামায়াত ডা. শফিুকর রহমানের পক্ষ থেকে শীতার্ত মানুষের কল্যাণে আজ আমরা আপনাদের মাঝে হাজির হয়েছি।

তিনি আরো বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করতে হবে। সে লক্ষ্যে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত থাকার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান। লালমনিরহাট জেলার ৫টি উপজেলার গরীব-দুঃখী ২২০টি পরিবারের মাঝে ৩৪টি ঘর, এক হাজার সাতশতটি কম্বল, ১২টি টিউবয়েল ও ৬টি টয়লেট নির্মাণ করে সংশ্লিষ্ট পরিবারকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। আমীরে জামায়াত ডা. শফিকুর রহমান ১৮ জুলাই ২০২২ লালমনিরহাট সফরকালে এসবের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ”

দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত পৃথক পৃথক স্থান ও সভায় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সেক্রেটারি অধ্যক্ষ মাওলানা মমতাজ উদ্দিন, লালমনিরহাট জেলা আমীর প্রভাষক আতাউর রহমান, জেলা নায়েবে আমীর মাওলানা হাবিবুর রহমান, জেলা সেক্রেটারী এ্যাডভোকেট আবু তাহের, আদিতমারী উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট ফিরোজ হায়দার লাভলু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও জননেতা জনাব আনোয়ারুল ইসলাম রাজু, পলাশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব আলাউল ইসলাম ফাতেমি (পাবেল), পাটগ্রাম উপজেলা আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, হাতিবান্ধা উপজেলা আমীর প্রভাষক হাসান আলী প্রমুখ।