ফ্রান্স,ইতালি ও জার্মানির তিন দেশের প্রধানদের সাথে বৈঠকে জেলেনস্কির মাথায় হাত !

বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ সফরে গেছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ, ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এবং ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাগি।

ইউক্রেনের পাশে আছেন, সেটি প্রমাণ করতেই যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে গেছেন এ তিন নেতা। এমনই বক্তব্য দেশগুলোর।তবে প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কির একজন উপদেষ্টা জার্মান একটি গণমাধ্যমকে বলেছেন, তাদের ভয়- রাশিয়ার সঙ্গে আপস করতে রাজি হতে জেলেনস্কিকে চাপ দিতে পারেন এ তিন নেতা।

তিন রাষ্ট্রপ্রধান ও ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কির একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠক হবে।সেখানে জেলেনস্কিকে তারা বলতে পারেন, তিনি যেন যুদ্ধ বন্ধ হওয়ার জন্য পুতিনকে কিছু অঞ্চল ছেড়ে দিতে সম্মত হন।

গণমাধ্যম বিবিসির সাংবাদিক ও কিয়েভ প্রতিনিধি নিক বিয়েক জানিয়েছেন, যুদ্ধের শুরুতে ইউক্রেনকে নিয়ে ইউরোপ যেমন ঐক্যবদ্ধ হয়েছিল এখন সেটি নেই।

রাশিয়ার গ্যাসের ওপর নিষেধাজ্ঞার আলোচনা নিয়েই বিভক্ত হয়ে পড়েছে দেশগুলো।ইউরোপীয় ইউনিয়নে গ্যাস নিষেধাজ্ঞার আলোচনা ওঠতেই সেটির বিরুদ্ধে গেছে অনেক দেশ।

ইউক্রেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য হতে চায়। তারা চায় দ্রুত যেন ইইউ তাদের সদস্যপদ দেয়।এ বিষয়টি নিয়েও বিভক্তি আছে। পোল্যান্ড চায় ইউক্রেন দ্রুত ইউনিয়নের সদস্য হোক। কিন্তু কিছু দেশ বলছে স্বাভাবিক প্রক্রিয়া শেষেই যেন যুদ্ধবিধ্বস্ত এ দেশটিকে সদস্যপদ দেওয়া হয়।

সূত্র: বিবিসি