যে কারণে অল্পবয়সী মেয়েদের প্রেমে পড়েন বয়স্ক পুরুষরা!

অনেক সময়ই দেখা যায় এক মাঝ বয়সী পুরুষ এক তরুণীর প্রেমে পড়েছেন। সাহিত্যে এই উদাহরণ হামেশাই পাওয়া যায়। বাস্তবেও এমন হয় অনেক সময়।

কিন্তু কেন বয়স্ক পুরুষেরা অল্পবয়সী প্রেমিকা চান, জানেন? কেন অল্পবয়সী মেয়েদের প্রেমে পড়েন বয়স্ক পুরুষরা? সেসব কারণ শুনলে অবাক হতে পারেন আপনিও…

আমরা অনেক সময়েই দেখি বয়স্ক পুরুষেরা অল্পবয়সী মেয়েদের সঙ্গে ঘুর বেড়াতে ভালোবাসেন। তাঁদের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরির ইচ্ছেও প্রকাশ করেন।

অনেকেই মনে করেন, বয়স্ক পুরুষরা সেই অল্পবয়সী মেয়েদের সঙ্গে সময় কাটাতে ভালোবাসেন। কারণ তা তাঁদের যৌবনের দিনগুলো মনে করিয়ে দেয়।

এদিকে আবার অনেকে মনে করেন, তাঁরা মিডলাইফ ক্রাইসিস কাটানোর জন্য় অল্পবয়সী মেয়েদের সঙ্গে প্রেম করতে চান। সত্যি বলতে, যে জীবনটা সবে শুরু করেছে, তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করতে ভালো লাগতেই পারে।

আসুন জেনে নেওয়া যাক, আসলে কেন বয়স্ক পুরুষরা অল্পবয়সী মহিলাদের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করতে চান…
জীবনকে নিজের মতো বাঁচার ইচ্ছে

কম বয়সী মেয়েদের উপর জীবন ও সংসারের সেরকম চাপ থাকে না। তাঁরা জীবনকে নতুনভাবে বাঁচতে চান। কোনও কিছুর কথা না ভেবে জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত উপভোগ করতে চান।

বয়স্ক পুরুষদের সেই বিষয়টিই ভালো লাগে। তাঁরা মনে করেন, এতে তাঁদের দুশ্চিন্তা ও দায়ভার অনেকটাই কম হবে। কারণ বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরুষদের অনেক কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়। সেসব সমস্যা নিয়েই চলতে হয়।

কে কী বলল, তা ভাবেন না: মানুষের যত বয়স বাড়ে, ততই তাঁর উপর চাপ এসে পড়তে থাকে। তিনি আরও বেশি স্ট্রেটফরোায়র্ড হন। মানুষ কী বলল, তাতে গুরুত্ব দেন না।

তাই বয়স্ক পুরুষেরা অল্প বয়সী মেয়েদের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করার সময় চারপাশ ভাবেন না। কে তাঁদের কী বলল, কত সমালোচনা এধার ওধার হল।

এইসব নিয়ে কোনওরকম মাথাব্যথা তাঁদের মধ্যে থাকেন না। এছাড়াও তাঁর মধ্যে যে খারাপ অভ্যাস আছে, তা নিয়ে প্রেমিকা অভিযোগ করবেন না বলেই বিশ্বাস করেন। যা হয়তো কোনও বয়স্ক মহিলা বারবার করে থাকেন। কোনও ইশ্য়ু নিয়ে তাঁর মাথাব্যথা থাকে না।

সম্পর্ক মজবুত করা: সাধারণত, অল্পবয়সী মেয়েরা তাঁদের কেরিয়ার গড়ে তোলার পাশাপাশি সম্পর্কের দিকেও মন দেন। তা মজবুত করতে চান। কিন্তু ছেলেরা সেই সময়ে শুধুই কেরিয়ার নিয়ে ব্যস্ত থাকে। বিভিন্ন লক্ষ্যপূরণ করা নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। পরবর্তী সময়ে এই বিষয়টি ছেলেরা অনুভব করেন ও বুঝতে পারেন।

তাঁরা তখন বোঝেন যে, তাঁদের সেই সময়ে হয়তো পরিবারের সঙ্গে বা বন্ধুদের সঙ্গে আরও বেশি করে কথা বলা উচিত ছিল। যোগাযোগ রাখা উচিত ছিল। সম্পর্ক মজবুত হলে তাঁরও ভালো লাগত। এই বিষয়টি অল্পবয়সী মেয়েটির মধ্য়ে আবার দেখে ভালো লাগে তাঁর।

যৌবনের কথা মনে পড়ে: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বয়স বাড়ে। কিন্তু কৈশোর বা যৌবনের যে সুন্দর স্মৃতি, তা সবাই মনে রাখতে চান। জীবনের সেই সুন্দর সময়টি ফিরে পেতে চান। তাই যে অল্প বয়সী প্রেমিকার মধ্য়ে জীবনের আনন্দ অনেক বেশি, তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করতে চান পুরুষরা। কারণ প্রেমিকার যৌবনের আনন্দ ও স্বাদ তাঁর যৌবনের কথা তাঁকে বারবার মনে করিয়ে দেয়।