যে কারণে বিএনপির ওপর ‘ক্ষোভ’ ঝাড়লেন নুর 

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী যুবদলের সমাবেশের কারণে অবস্থান করতে পারেনি গণ অধিকার পরিষদ। এ ঘটনায় বিএনপির ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি ও গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নুর।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে গণ অধিকার পরিষদের নেতা–কর্মীরা একটি মিছিল নিয়ে জিরো পয়েন্ট হয়ে প্রেসক্লাবের দিকে এগিয়ে গেলে সেখানে যুবদলের একটি কর্মসূচি চলায় মিছিলটি আবার ফিরে আসতে হয়। পরে সেখানে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে গণ অধিকার পরিষদের মিছিলটি আবার পল্টন জিরো পয়েন্টে ফিরে এসে সমাবেশ করে।

এ ঘটনায় বিএনপিকে ইঙ্গিত করে বক্তব্যে নুরুল হক বলেন, আপনারা অতীতে ক্ষমতায় ছিলেন; ভবিষ্যতে শেখ হাসিনার পতন হলে একটি সম্মিলিত সরকার গঠিত হবে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সেখানে থাকবে। কিন্তু আপনাদের আচরণ যদি এখনো অসহিষ্ণু হয়, আপনাদের দ্বারা মানুষ কীভাবে সহনশীল রাষ্ট্র আশা করবে? আমরা প্রেসক্লাবের এখান থেকে শান্তিপূর্ণ একটি মিছিল নিয়ে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমরা দেখেছি, একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি চলছে। তাদের সর্বোচ্চ নেতৃবৃন্দ আমাদের জায়গা করে দেওয়ার কথা বললেও নেতা–কর্মীরা আমাদের জায়গা দেয়নি। আপনাদের এই অসহিষ্ণু আচরণ প্রমাণ করে, আপনাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সহনশীলতা তৈরি হয়নি।

সারাদেশের বিরোধী ও ভিন্নমত মানুষের দমন, নিপীড়ন, হুমকি, মামলা ও হয়রানির প্রতিবাদে এই মৌন মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করে গণ অধিকার পরিষদ।

বিক্ষোভ সমাবেশে গণ অধিকার পরিষদের সভাপতি রেজা কিবরিয়া বলেন, দেশে নৈরাজ্য চলছে। ছাত্রলীগ রাস্তায় রাস্তায় মানুষকে আক্রমণ করছে। তারা আদালতে গিয়েও আক্রমণ করেছে।

নুরুল হক নুর বলেন, সরকারের দোসররা প্রত্যেকে টাকা-পয়সা বাইরে পাচার করেছে। তারা না হয় বিমানে উড়াল দিয়ে রেহাই পেতে পারেন। কিন্তু আপনারা যারা তৃণমূলে রাজনীতি করছেন আপনাদেরকে তো দেশে থাকতে হবে। সুতরাং আপনাদের সতর্ক করে বলে দিতে চাই আপনারা আশপাশের পরিস্থিতির দিকে তাকান, মানুষের মুখের ভাষা বুঝতে চেষ্টা করুন। যেদিন মানুষ রাস্তায় নেমে আসবে সেদিন পালানোর রাস্তা খুঁজে পাবেন না।

এ সময় সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন গণ অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক ড. মালেক হোসেন, অবসরপ্রাপ্ত বিগ্রেডিয়ার জেনারেল হাবিবুর রহমান হাবিব, শাকিল উজ্জামান, আমিন আহমেদ আফসারি, রাসেদ খান, ফারুক হাসান, আবু হানিফ প্রমুখ। যুগান্তর