আর কোন ভুল নয়! বিজয়কে নিয়ে খুশির খবর দিলেন নির্বাচক রাজ্জাক

বাংলাদেশের ক্রিকেটে আবারও নতুন করে আলোচনায় জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার ব্যাটার এনামুল হক বিজয়। বিপিএলের পর চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) দারুণ ছন্দে রয়েছেন এনামুল।

সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায়ও নিজের জায়গা ধরে রেখেছেন। দেশের ক্রিকেটে এনামুল হক বিজয়ের আগমন ছিল অনেক আশা জাগানিয়া। ২০১২ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন বিজয়।

ওই আসরে বাংলাদেশ টুর্নামেন্ট শেষ করেছিল সপ্তম হয়ে। পাকিস্তানের বাবর আজমদের ছাড়িয়ে ৩৬৫ রান নিয়ে সেই টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন বিজয়।বিজয়ের মাঝেই নতুন দিনের আশা দেখতে পেয়েছিলেন নির্বাচকরা।

ফলে তাড়াতাড়ি ডাকও পেয়ে যান জাতীয় দলে। কিন্তু জাতীয় দলে তার অভিষেকটা যতটা ঘটা করে হয়েছিল, পতনটাও তত নীরবে হয়। ২০১২ সালে ওয়ানডেতে অভিষেক হয় এনামুল হক বিজয়ের।

এরপর ফর্ম ওঠানামার কারণে জাতীয় দল থেকে ছিটকে যান। সবশেষ ২০১৯ সালে জাতীয় দলের জার্সিতে শেষ ম্যাচ খেলেছেন বিজয়। তবে চলমান ডিপিএলে দারুণ ফর্মের জন্য তাকে জাতীয় দলে ফেরানোর পক্ষে আওয়াজ তুলছেন অনেকেই।

যে তালিকায় আছেন খোদ বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাও। এদিকে, নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাকও শোনালেন আশার কথা। গণমাধ্যমকে তিনি জানান, ডিপিএলে ভালো পারফর্ম করাদের বিবেচনায় রাখছেন তারা।

তিনি বলেন, বিজয় খুব ভালো সময় কাটাচ্ছে। এই প্রিমিয়ার লিগটায় ও আউটস্ট্যান্ডিং। প্রত্যেক খেলোয়াড়ই বিবেচনায় থাকার মত। সেই সঙ্গে এটাও দেখতে হয় কোন জায়গায় কখন কোন খেলোয়াড়কে নিতে হবে।

বা তার জায়গায় কে কে আছে, কে কে খেলছে।’ রাজ্জাক আরও বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করব, যারা ভালো করবে তাদের সংস্পর্শে রাখার। তাতে দলের প্রয়োজন অনুযায়ী যেন যে কাউকে পাওয়া যায়।’