পাকিস্তান সিরিজে ম্যানেজার নাফিস, ফিল্ডিং কোচ বাবুল

দীর্ঘ ৬ বছর পর বাংলাদেশ সফরে এসেছে পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল৷ আর সেই সিরিজের আগে টিম ম্যানেজমেন্টে দুইটি গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন নিয়ে এসেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

ব্যর্থ বিশ্বকাপ মিশন শেষে দেশে ফেরার পর বাংলাদেশ জাতীয় দলের টিম অপারেশন্স ও লজিস্টিকস ম্যানেজার সাব্বির খানের পদত্যাগের গুঞ্জন উঠেছিল। শেষ পর্যন্ত, জানা গেল আসলেই পদত্যাগ করেছেন তিনি। গত ৭ই নভেম্বর নিজে থেকেই বিসিবিতে পদত্যাগ পত্র জমা দেন তিনি৷

তার পদত্যাগের পর পাকিস্তান সিরিজের আগে নতুন লজিস্টিক ম্যানেজার পেল টাইগাররা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি), আরেক সাবেক ক্রিকেটার নাফিস ইকবালকে নিয়োগ দিয়েছে পাকিস্তান সিরিজের লজিস্টিক ম্যানেজার হিসেবে৷

দায়িত্ব পেয়ে ইতোমধ্যে কাজও শুরু করে দিয়েছেন নাফিস ইকবাল৷ রবিবার টাইগারদের অনুশীলন সেশনে উপস্থিত ছিলেন তিনি৷ আজদ্বিতীয় দিনের মত মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন শুরু করছে বাংলাদেশ দল। আর সেই অনুশীলন শুরুর আগে নতুন লজিস্টিক ম্যানেজার নাফিস ইকবালকে বরণ করে নিয়েছেন ক্রিকেটাররা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর কোচিং প্যানেলের রদবদল অনেকটা অবধারিতই ছিল৷ বিশেষ করে পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে চলা ফিল্ডিংয়ের যাচ্ছে-তাই প্রদর্শনীর পর ফিল্ডিং কোচের চাকরি হারানোটা ছিল শুধু সময়ের ব্যাপারই। বিশ্বকাপ মিশন শেষে সেই পথেই হেঁটেছে বিসিবি ৷ অনেক আলোচনা-সমালোচনার পর অবশেষে গত শনিবার চাকরি হারান টাইগারদের ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক। দলের সাম্প্রতিক ফিল্ডিং ব্যর্থতার কারণেই তার সাথে আর চুক্তি নবায়ন করেনি বিসিবি ।

আর পাকিস্তান সিরিজের আগে নতুন বিদেশি কোচ পাওয়ার সম্ভাবনা যে নাই, সেটা আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ( বিসিবি) পরিচালক আকরাম খান৷ তিনি আরও জানিয়েছিলেন, স্থানীয় কোন কোচকে দেওয়া হবে অন্তর্বর্তীকালীন ফিল্ডিং কোচের দায়িত্ব। অবশেষে আজ রবিবার সেই নামটিও খোলাসা করলো বিসিবি ৷ পাকিস্তান সিরিজে ফিল্ডিং কোচ হিসাবে দেখা যাবে মিজানুর রহমান বাবুলকে।সূত্র:বিডিক্রিকটিম