শাহরুখ পুত্র ইস্যু; এবার যাকে জেরার মুখোমুখি করায় ভারতজুড়ে নতুন চাঞ্চল্য

ভারত সহ সারা দুনিয়ার বিনোদন জগতে চলছে আলোচনা আর সমালোচনার ঝড়। বলিউড বাদশা শাহরুখ-পুত্রের মাদক কাণ্ডে গ্রেফতার তার পর জেল! তবে উত্তাপের আঁচ কয়েকগুণ বাড়িয়ে এনসিবি জেরার মুখে পড়তে চলেছেন শাহরুখের গাড়ির চালক রাজেশ মিশ্র।

প্রমোদতরীর মাদক মামলায় গতকাল শনিবার (৯ অক্টোবর) জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে মুম্বাইয়ের এনসিবি দফতরে হাজির হন রাজেশ মিশ্র। সূত্রের খবর, রাজেশকে জেরা করে তার বয়ান রেকর্ড করবে এনসিবি। শাহরুখ পুত্র আরিয়ানের জামিনের আবেদন খারিজ হওয়ার ঠিক পরেই গাড়ি চালকের জেরা মুখোমুখি হওয়ার ঘটনায় ভারতজুড়ে নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

সূত্রের খবর, এই গাড়ির চালক সেই শনিবার পার্টিতে আরিয়ানকে পৌঁছে দিয়েছিলেন। কোথা থেকে মাদক আসত, কে বা কারা যুক্ত, কতদিন ধরে এই কাণ্ড চলছে, সবকিছুই খতিয়ে দেখছে এনসিবি। সেই তদন্তেই এবার শাহরুখের গাড়ির চালককে জেরা করছে তদন্তকারী দল। মুম্বাই থেকে গোয়াগামী ওই প্রমোদতরীর পার্টিতে আরিয়ান এবং তার বন্ধুদের পৌঁছে দেন ওই গাড়ির চালক। ফলে পার্টির বিষয়ে বিস্তারিত আরও জানতে তাকে জেরা করা হবে বলেই জানা যাচ্ছে।

ড্রাগ সংক্রান্ত এই মামলায় আরিয়ান সহ আরও পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে এনসিবি। তাদের প্রত্যেকেই আর্থার রোড জেলে পাঠানো হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার এনসিবি রিমান্ড শেষে বিচারক, আটককৃতদের ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেয়। এই ঘটনায় আটক মুনুমুন ধামেচা ও অন্য আরেকজন নারীকে বাইকুল্লাই মহিলা জেলে পাঠানো হয়েছে।

জামিন খারিজ হওয়ার পরই আরিয়ানসহ বাকি পাঁচজনকেই এই সপ্তাহ জেলে কাটাতে হবে। আরিয়ান খান ও আরবাজ মার্চেন্টকে আর্থার রোড জেলে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। জেলে তাদের বিশেষ কোনও সুযোগ সুবিধা মিলবে না। মুম্বাইয়ের প্রমোদতরীতে অভিযানের সূত্র ধরেই এনসিবি সিনেমার প্রযোজক ইমতিয়াজ খতরির বান্দ্রার অফিসে অভিযান চালিয়েছে।