অবশেষে জানাগেল মাহমুদুল্লাহর অবসর নেয়ার আসল কারন

মাহমুদুল্লাহর অবসর নেয়ার আসল কারন-প্রথমে মনে হয়েছিল আসলে এইটা গুজব। হয়তোবা কে বা কারা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে এইসব গুজব ছড়াচ্ছে। এইতো মাত্র একদিন আগেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্ট ম্যাচে প্রথম ইনিংসে নিজের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস

খেলেছেন মহমুদুল্লাহ রিয়াদ। নিজের ৫০তম টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ক্যারিয়ার সেরা ১৫০ রান করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদুল্লাহ। সেটিও তিনি করেছেন অষ্টম নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমে। বাংলাদেশ ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দলের অন্যতম সেরা এই সদস্য গত ১৭

মাস ধরে টেস্ট ক্রিকেটের থেকে বাইরে ছিলেন। তামিম ইকবালের ইনজুরির কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সুযোগ পান মাহমুদুল্লাহ। একাদশে সুযোগ পেয়ে নিজেকে তুলে ধরেছেন অন্য উচ্চতায়। আর সেই নাকি এখন বলেছেন টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে চান। প্রথমে গুজব

মনে হলেও এখন বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কথা শুনে মনে হচ্ছে সত্যই টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। এমনকি টিম মিটিংয়ে এটি বলেছেন তিনি। যেটি নিশ্চিত করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তবে অবসরের এ

ব্যাপারে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে মিডিয়াকে কিছু বলেনি বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তবে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে চান এটা সত্য। তবে হঠাৎ করেই কেন টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে চান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ? যতদিন

পর্যন্ত জানা গিয়েছে অভিমান করেই টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। ১৭ মাস আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ থেকে বাদ পড়েন মাহমুদুল্লাহ। এরপরেই বাংলাদেশ টেস্ট কখন থেকে বাইরে ছিলেন তিনি। টেস্ট ক্রিকেটটা যে তিনি খেলতে পারেন, সেটাই নাকি সবাইকে জানিয়ে দিতে চেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ। হারারে টেস্টে দলের বিপদের মুহূর্তে করা অপরাজিত সেঞ্চুরি দিয়ে তা দেখানো হয়ে গেছে। এবার বিদায়ের পালা।