একসঙ্গে ৪ প্রে’মিক নিয়ে পা’লাল তরুণী> অবশেষে যার সাথে বিয়ে

অবশেষে যার সাথে বিয়ে -একজন নয়; চার প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে পা’লিয়েছিল ভারতের এক তরুণী। এরপর খোঁ’জাখুজির পর ধ’রাও পড়েন। শা’স্তি হিসেবে লটারির মাধ্যমে চার প্রে’মিকের মধ্যে একজনকে বিয়ে করতে হয় সেই ত’রুণীকে। ভারতের উত্তরপ্রদেশের অম্বেডকরনগরের

একটি গ্রা’মে অদ্ভূত এ ঘ’টনা। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার। খবরে বলা হয়, অম্বেডকরনগরের টান্ডা থানা এলাকার এক ত’রুণী চলতি মাসের শুরুতে চার যু’বকের স’ঙ্গে পা’লিয়ে যান। ওই যু’বকরা সবাই পার্শ্ববর্তী আ’জিমনগর থানা এলাকার বাসিন্দা। এই চার যুব’কের সঙ্গেই

প্রে’ম ক’রতেন তরুণী। প্রথমে নিজের বাড়ি থেকে পালিয়ে এক যু’বকের আ’ত্মীয়ের বাড়িতে গিয়ে আ’শ্রয় নেন ওই তরুণী। তবে বেশিদিন পা’লিয়ে থা’কতে পারেননি। পরে চার যুবকসহ গ্রামে ফি’রতে বাধ্য হন ত’রুণী।বাবা-মা থা’নায় অ’ভিযোগ দা’য়েরের প্রস্তুতি

নিলে গ্রামবাসীর বা’ধায় তা আর হয়ে ওঠেনি। গ্রাম্য পঞ্চায়েতের বিচার ও সমাধানের আশ্বস্ত করা হয় তাদের। পরে পঞ্চায়েত সভায় এই সি’দ্ধান্ত হয় যে, সঙ্গে পা’লিয়ে যাওয়া চার যু’বকের মধ্যে কোনো একজনকে বর হিসেবে বেছে নিতে হবে ত’রুণীকে। তার সঙ্গেই বিয়ে হবে

তরুণীর। এমন সিদ্ধান্তে তরুণীর পরিবার সম্মতি দিলেও সি’দ্ধান্তহীনতায় ভু’গতে থা’কেন ত’রুণী। কারণ চার প্রে’মিককেই প’ছন্দ তার। কাকে বিয়ে করবেন তরুণী? এ নিয়ে জ’টিলতা তৈরি হলে ফের পঞ্চা’য়েত সভা এগিয়ে আসে। লটারির মাধ্যমে এ সমস্যা সমাধান করে দেন

পঞ্চায়েতের কর্তারা। সভার কর্তাদের কথা মতো একটি পাত্রে চার যুবকের নাম লেখা কাগজ রাখা হয়। এরপর গ্রামের একটি শিশুকে সেখান থেকে কাগজ তু’লতে বলা হয়। সেই কাগজে যে যুবকের নাম ওঠে তাকেই বি’য়ে করেন ত রুণী।bd24live