ছোট ভাইয়ের কিডনি বিক্রির চেষ্টা, বড় ভাই আটক

ছোট ভাইয়ের কি’ডনি বিক্রির চেষ্টা-চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে আপন ছোট ভাই রায়হান এহসান রিহান (৫) কে অ’পহরণ করে কি’ডনি বিক্রয়ের চেষ্টার অ’ভিযোগে বড় ভা’ইকে আ’টক ক’রেছে পু’লিশ। অপ’হরণকারী ফা’হাদ বিন ইহসান তা’রেক অ’পহৃত রায়হান এহসান

রিহানের আ’পন ব’ড় ভাই। এ ঘ’টনায় ছেলের বি’রুদ্ধে হা’জীগঞ্জ থা’নায় মা’মলা দা’য়ের করেছে বাবা মো. আবু তাহের। রিহানকে অ’পহরণের পর বা’সায় একটি চিঠি লি’খে যায় তারেক। চিঠিতে তারেক উল্লেখ করেন, আমি শুধু এই দিনটির অ’পেক্ষায় ছিলাম।

আমি যেদিন কি’ডনি বিক্রি করে ছিলাম, ঠিক সেদিন থেকে আপনারা আমার অ’বহেলা করা শুরু করছেন। অথচ আপনাদের অ’ত্যাচারে আমি বা’ধ্য হয়েছি নি’জের অ’ঙ্গ বি’ক্রি করতে। আপনারা আমার জীবনের সব শেষ করে দিয়েছেন। আমার স্ত্রী অ’ন্যের বি’ছানায়

স’ঙ্গী শুধু আ’পনাদের জন্য। আমার সন্তানের মু’খ পর্য’ন্ত আমি আ’জও দে’খি নাই। আমার জী’বন ন’ষ্ট করে আ’পনারা শা’ন্তিতে থা’কবেন। ভা’বলেন কিভাবে। আমি এতদিন অ’পেক্ষা করেছি। আপ’নাদের হাতে সু’যোগ থাকা সত্তে¡ও আপ’নারা আ’মাকে কোন

ব্য’বস্থা করে দেন নাই। আপনার সন্তান যেখানে বে’কার, সেখানে আ’পনারা হিন্দুর সন্তানকে ২০ লাখ টাকা দেন ব্যবসা করার জন্য। আপনাদের টাকা পয়সা মানুষের জন্য। এতদিন কোনো বা’চ্চা পে’শেন্ট পাই নাই। তাই আপনাদের সবকিছু মুখ বু’জে সহ্য করেছি।

আমার মত এবার আপনাদের ছোট ছেলে কি’ডনি দিবে। আ’পনারা আমার ব্য’বস্থা করেন নাই, তাই এটা ছাড়া আমার আর কিছুই করার ছিল না। আ’পনারা আপনাদের টাকা-পয়সা নি’য়েই থাকেন। আর মানুষের ছে’লেদেরই বড় বা’নান। আমার কি’ডনি বি’ক্রির সময় যেমন

কিছু করতে পারে’ন নাই। এবারও পা’রবেন না, আপ’নাদের ছোট ছে’লের সময়। চিঠির সূত্র ধরেই হাজীগঞ্জ থা’নায় সাধারণ ডায়েরি করে তা’রেকের বাবা। পরে কৌ’শলে তাকে ৫ লাখ টাকা দে’য়ার কথা বলে হা’জীগঞ্জে নিয়ে আসলে গো’পনে থা’নার এসআই মো’শারফ

তারেককে আ’টক করে। আ’টক তারেকের মা ফরিদা সুলতানা শিখা মুঠোফোনে জানান, আমার বড় ছেলে ছোট ভা’ইয়ের সাথে এমন করবে এটা আমি ক’ল্পনাও করতে পা’রিনি। পু’লিশের হা’তে আ’টক তা’রেক জানান, মা’য়ের কা’রণে আ’মার স্ত্রী আজ অ’ন্যের শ’য্যায় যাচ্ছে।

আমি আমার কি’ডনি বি’ক্রি করে ব্যবসা শুরু করেছি। তবুও আ’মার গ’র্ভধারিনী মা আমাকে ব্য’বসার জন্য টা’কা না দিয়ে আ’রেকজনকে আ’মার সামনে ২০ লাখ টাকা ধা’র দেয় ব্যবসা করার জন্য। আমি স্ত্রী-সন্তান হারিয়ে আ’মার মা’য়ের জন্য আজ পথে পথে হাটছি। তারা আমা’কে বাধ্য করেছে। এমন ঘ’টনা ঘ’টাতে।

তারেক বলেন, আমি আমার ছোট ভাইকে অ’পহরণ করেছি শুধুমাত্র টা’কার জন্য। কি’ডনি বি’ক্রির কথাটি চিঠিতে লিখে আমার মা-বাবাকে ভ’য় দে’খিয়ে ছিলাম। মা’মলার ত’দন্তকারী ক’র্মকর্তা এসআই মোশারফ জানান, অ’পহরণকা’রীকে আ’টক ক’রা হয়েছে। অ’পহৃত রি’হানও আমাদের জি’ম্মায় রয়েছে । আগামীকাল (মঙ্গলবার) অ’পহরণকা’রীকে আ’দালতে পা’ঠানো হবে।bd24live