মুখে দুর্গন্ধের জন্য দায়ী ৭ শারীরিক সমস্যা…

মুখে দুর্গন্ধ হওয়ার কারণ শুধুমাত্র অপরিষ্কার দাঁত এবং বাজে খাদ্যাভ্যাস নয়। মুখে দুর্গন্ধ নানা কারণেই হয়ে থাকে যার বেশির ভাগই হয় নানা শারীরিক সমস্যার কারণে। তাই মুখে দুর্গন্ধ হলে তা অবহেলা করে এড়িয়ে যাবেন না। কিন্তু কীভাবে বুঝবেন আপনার মুখের দুর্গন্ধের কারণ শারীরিক সমস্যা?

আসুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে বুঝবেন যে ৭টি শারীরিক সমস্যার লক্ষণ প্রকাশ পাচ্ছে আপনার মুখের দুর্গন্ধে।
১. যদি মুখের দুর্গন্ধ অ্যামোনিয়া ধরনের হয় অর্থাৎ কিছুটা প্রসাবের মতো গন্ধ হতে থাকে তাহলে সতর্ক হয়ে যান। কারণ এই ধরনের দুর্গন্ধ প্রমাণ করে আপনার টাইপ-১ ডায়বেটিসের সমস্যা হয়েছে। এই গন্ধের মূল কারণ হচ্ছে ডায়বেটিসের কারণে দেহে ইনসুলিনের অভাব।

২. যদি আপনার নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ পান তাহলে বুঝে নেবেন আপনার সাইনাসে সমস্যা রয়েছে। এর কারণ হচ্ছে নাকে ও গলায় মিউকাস জমে থাকা।

৩. যদি টক দুধের মতো টক টক ধরনের গন্ধ পান আপনার নিঃশ্বাসে আপনার খাবারে প্রোটিনের মাত্রা অতিরিক্ত বেশি হয়েছে। এর কারণ হচ্ছে কিটোনের ভাঙন।

৪. যদি আপনার নিঃশ্বাসে পচে যাওয়া মাংসের মতো দুর্গন্ধ পান তাহলে বুঝে নেবেন আপনার টনসিলের সমস্যা হয়েছে। টনসিলের কারণে সালফার উৎপন্নকারী ব্যাকটেরিয়া অধিক জন্ম নিচ্ছে যার কারণেই নিঃশ্বাসে এই ধরনের দুর্গন্ধের সৃষ্টি হচ্ছে।

৫. যদি আপনার নিঃশ্বাসে দিনের প্রত্যেকটা সময় সকালে ঘুম থেকে উঠার পর যেমন গন্ধ থাকে তেমন গন্ধ পান তাহলে আপনার ‘জেরোস্টোমিয়া’ অর্থাৎ মুখ শুকিয়ে যাওয়ার সমস্যা রয়েছে। মুখে ভেতরের স্যালিভা শুকিয়ে গেলে ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন হতে থাকে যা এই ধরনের দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে।

৬. যদি আপনার নিঃশ্বাসে আঁশটে গন্ধ হয় তাহলে বুঝে নেবেন আপনার কিডনি সমস্যা হয়েছে। কিডনিতে সমস্যা হলে এবং কিডনি সঠিকভাবে কাজ না করলে নাইট্রোজেন উৎপন্ন হয় যা এই ধরনের দুর্গন্ধের জন্য দায়ী।

৭. খুবই বাজে ধরনের দুর্গন্ধ এবং বাথরুমের মতো গন্ধ পেলে বুঝে নেবেন আপনার মাড়িতে ইনফেকশন হয়েছে। সুতরাং সাবধান। শারীরিক সমস্যা যদি বুঝে নিতে পারেন নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ থেকে, তাহলে দেরি না করে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন।