মেয়ের স্কুলের অ্যাসাইনমেন্টের খরচ দিতে পরনের কাপড় বিক্রি করলেন মা

মেয়ের অ্যাসাইনমেন্টের খরচ দিতে পরনের কাপড় বিক্রি করলেন মা ।এমসি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রিতু আক্তার জানায়, অ্যাসাইনমেন্ট দিতে বললে শিক্ষক আনোয়ার হোসেন তিন পাতার প্রশ্ন, দুটি কলম ও এক পাতার সাজেশন দিয়ে ৩৪০ টাকা চান।

এ সময় বাবার দেয়া ১০০ টাকার একটি নোট দিলে শিক্ষক আমাকে ধমক দিয়ে তাড়িয়ে দেন।৩৪০ টাকাই দিতে হবে; দিতে না পারলে অষ্টম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হতে পারবে না বলে জানান শিক্ষক আনোয়ার।

পরে কান্নাকাটি করে বাড়িতে গিয়ে ঘটনাটি মা বিলকিস আক্তারকে জানায় রিতু।মা বাধ্য হয়ে পরনের কাপড় বিক্রি করেন।এ বিষয়ে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার এমসি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, অ্যাসাইনমেন্টে টাকা লাগে না।

কেন ওই শিক্ষক টাকা নিয়েছেন এজন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।শিক্ষক মানুষ গড়ার কারিগর, অথচ এ কেমন শিক্ষক? এই ঘটনা থেকে কি মেসেজপাচ্ছি আমরা? আসলে আমরা হাঁটছি কোন পথে!!!