একটি অ’বাক করা ত’থ্য উ’ঠে এসেছে লাদেনের একজন স্ত্রীকে ঘি’রে, যে কারণে উ’দ্বি’গ্ন ছিলেন স্বয়ং লাদেন নিজেই!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়া’র্ল্ড ট্রে’ড সে’ন্টার ‘ধ্বং’সের মূ’লচ’ক্রী লাদেনকে ২০১১ সালে পাকিস্তানের অ্যা’বোটাবা’দে হ’ত্যা করে মার্কিন যৌ’থ বাহি’নী। হ’ত্যার ৯ ‌বছর পরও তাঁকে ঘি’রে উ’ঠে আ’সছে নতুন নতুন ত’থ্য। স’ম্প্র’তি একটি অ’বা’ক করা ত’থ্য উ’ঠে এসেছে তাকে ঘি’রে। ন্যাশনাল জিও’গ্রাফিক চ্যা’নেলের করা এক ত’থ্যচি’ত্রে দা’বি করা হচ্ছে, এক বউকে নিয়ে খুব উ’দ্বি’গ্ন ছিলেন লাদেন।

বিন লাদেনের হা’র্ড ড্রা’ইভ নামে ওই ত’থ্যচি’ত্রে দা’বি করা হয়, লাদেনের চার স্ত্রীর মধ্যে এক স্ত্রী নিয়ে খুব উ’দ্বি’গ্ন ছিলেন তিনি। বিশ্বের প্রা’ক্ত’ন এই এক নম্বর স’ন্ত্রা’সীর স্ত্রীর দাঁতের নি’চে লু’কা’নো ছিল ট্র্যা’কিং ডি’ভা’ই’স। চিকিৎসকের কাছে গিয়ে দাঁতের নি’চে ট্র্যা’কিং ডি’ভা’ইস ব’সা’নো হয় বলে দা’বি করা হয় ত’থ্যচি’ত্রে। আর এই কারণে লাদেন তাকে নিয়ে উ’দ্বি’গ্ন ছিলেন।

মার্কিন সৈ’ন্য, যাঁরা লাদেনকে মে’রে’ছিলেন, তাঁরাই দা’বি করেছেন, লাদেনের বাড়ি থেকে উ’দ্ধা’র করা হয়েছিল অনেক প’র্ন ভি’ডিও ও ছবি, পত্রিকা, অ্যা’নি’মে’টে’ড সিনেমা এবং মে’ম’স।

সেগুলো সেই সময়ে দাঁ’ড়িয়ে যথে’ষ্ট উন্নতমানের ক্যামেরা ও প্র’যু’ক্তি ব্য’বহার করে শু’টিং করা হয়েছিল। আর সেগুলোই নিয়ে নি’র্মি’ত ন্যাশনাল জিও’গ্রাফির ত’থ্যচি’ত্রটির প্রথম প’র্ব ১৩ সেপ্টেম্বর প্র’চা’রিত হয়েছিল।সূত্র: স্পুটনিক।