নাচের আড়ালে যত জঘন্য কাজ হয় জানালেন জনপ্রিয় নৃত্যশিল্পী ওয়ার্দা রিহাব

মাত্র ৩ বছর আগের কথা … একটি ফোন এলো , অপর প্রান্তে আমারই পরিচিত একজন নবীন নৃত্যশিল্পী ৷ কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেছিল তাদের বিদেশ সফরের প্রতারনার কথা৷ পর পর বেশ কয়েকটি ফোন এলো ৷ একই কাহিনী , একই অশ্রুবন্যা৷ দেশ টি ছিলো মালয়েশিয়া৷ এদের মধ্যে বেশ কয়েকজন ভিক্টিম একত্রিত হয়ে প্রতিবাদ করলেও তাদের কে হু’মকি দিয়ে ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়া হয়৷ ভুল সবই ভুল ….

গত বছর ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আমারই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছোট ভাই ফোন করলো৷ সে এয়ারপোর্ট সিকিউরিটির কর্মকর্তা ৷ মেসেন্জারে একজন সিনিয়র নৃত্যশিল্পীর ছবিসহ আরও ছয়জন ছেলের ছবি৷ ঐ শিল্পীকে চিনতে পারলেও বাকীদের চিনতে পারিনি৷ আমাকে জানানো হলো উনি এই ছেলেগুলোকে নৃত্যশিল্পী পরিচয় দিয়ে মালয়েশিয়া পাচার করতে গিয়ে ধরা পরেছেন৷ ঐ ছেলেগুলো স্বীকার করেছে৷ আমি হতভম্ব হয়ে গেলাম৷ সাথে সাথে জানালাম নৃত্যশিল্পী সংস্থাকে৷ নাহ্ ….ভুল সবই ভুল …

আর এই গত দুদিন আগে দেখলাম জাতীয় পুরষ্কার প্রাপ্ত নৃত্যশিল্পীর খবর…এটাও নিশ্চিত ভুল সবই ভুল ! এরকম আরও অনেক ঘটনা আছে…কারও মনে কি আদৌ প্রশ্ন জাগে কেন এসব হচ্ছে? কারা করছে? আদৌ এগুলো সত্য কিনা ? নাকি সব ষড়যন্ত্র? যদি তাই হয় তবে কেন এত ষড়যন্ত্র?

৩ বছর আগে মালয়েশিয়ার ঘটনার পরপর সংস্থা কে বলেছিলাম একটি বার্তা অন্তত সকল নৃত্যশিল্পীদের উদ্দেশ্যে পাঠানো হোক যেন কুচক্রীদল এধরনের কাজ বন্ধ করে৷ কিন্তু হায়… আমার কথার কোন মূল্য কি আছে আদৌ? গতবছর এয়ার্পোটের কথা জানানোর পর সবাই বললো চেপে যাও… নিজেদের মধ্যে কাদা ছোড়াছুড়ি করোনা৷ তাতে নৃত্যশিল্পীদেরই অসন্মান৷ আবারও আমি একা! যারা এসব করে তারা আশ্চর্যজনকভাবে কেউই আর্থিকভাবে অসচ্ছল নন… হ্যাঁ তবে চারিত্রিক নৈতিকতার দিক থেকে বড্ড দরিদ্র ৷

সবাই কাদা কে ভীষণ ভয় পায়৷ কাদার উৎস টা কেউই খুঁজতে নারাজ৷ এমনকি তাদের সচেতন করতেও নারাজ৷ যদি নৃত্যশিল্পীদের সন্মানহানী হয়! আর এই সন্মান বাচাতে বাচাতে এবার টিভি , মিডিয়া আর প্রথম আলোর মতো পত্রিকা কাদা ছুড়ে দিতে বাধ্য হলো আমাদের নৃত্যশিল্পীদের দের ঝকঝকে সাদা কাপড়ে ৷ টিভিতে একটি বিজ্ঞাপন দেখেছিলাম … ” দাগ থেকেই দারুণ কিছু শেখা যায়” !

আমরা কেনো শিখিনা বলুন তো৷ আমরা কেন এসকল মানুষ কে বয়কট করতে পারিনা? এখন অনেকেই তেড়ে আসবে… দোষী প্রমান না হলে কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক না৷ তবে জানেন কি প্রমান না হওয়া আর ধামা চাপা দেয়াকে কেউ গুলিয়ে ফেলবেন না দয়া করে৷ ওটা আমি অন্তত ভালোই বুঝি৷ টাকা , ক্ষমতা দিয়ে অনেকেই বেচে যায় তা জানি … কিন্তু যারা সত্যিকার অর্থে দোষী তাদের আমি আপনি ভালোই চিনি৷ বরং কাদা কে ভয় না পেয়ে চলুন না নৃত্যশিল্পীরা এই কাদার উৎস খুঁজে বের করে তা পরিষ্কার করার চেষ্টা করি ৷

হয়তো সাময়িকভাবে এতে আমাদের পোশাকে একটু আবর্জনা লাগবে তবে আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি আপনার পরবর্তী প্রজন্মের নৃত্যশিল্পীরা আজীবন ঝকঝকে পরিষ্কার কাপড় নিয়ে নৃত্য জগতে ঝলমল করবে ৷ আমি ও অন্যান্য অনেক নৃত্যশিল্পীরাই প্রতি বছর দল নিয়ে দেশের বাইরে সন্মানের সাথে নৃত্যানুষ্ঠান করছি … এই ঘটনা গুলো কি আমাদের জন্যও হুমকি স্বরূপ নয় কি?

নতুন প্রজন্মের নৃত্যশিল্পীরা তোমাদের কি মত? তোমরা কি চাওনা নৃত্য জগত থেকে এসব আবর্জনা পরিষ্কার করতে?মুক্তমনা নবীন নৃত্যশিল্পীরা জাগ্রত হও…সূত্র:বাংলা ইনসাইডার