অর্ধেক ফুসফুস নিয়েই দূর্দান্ত ক্রিকেট খেলে যাচ্ছেন ব্রড!

চলতি সাউদাম্পটন টেস্টে হঠাৎ স্টু’য়ার্ট ব্রডকে ই’নহেলার ব্যবহার করতে দেখে অবাক হয়েছেন অনেকে। কারও বুঝতে বাকি থাকার কথা নয়, ইংলিশ পেসারের অ্যা’জমার স’মস্যা আছে।

তবে একটি তথ্য হয়তো অনেকেই জানতেন না কিংবা শোনার পর আকাশ থেকে পড়েছেন, জন্মের পর থেকেই তার ফু’সফু’স অ’র্ধেকটা। এমন এক প্র’তিব’ন্ধকতাকে জয় করেই আজ কিং’বদন্তি পে’সারদের কাতারে ব্রড।

ইং’ল্যান্ডের টে’স্ট ইতিহাসের অন্যতম সেরা পেসার। নামের পাশে ৫০৮ টেস্ট উইকেট। গতির সঙ্গে পেসারদের সবচেয়ে বেশি দরকার হয় দম, অর্ধে’কটা ফু’সফু’স নিয়েই দম ধরে রেখে ওভারের পর ওভার বল করে যেতে পারেন ব্রড, অবিশ্বাস্যই!

পাঁচ বছর আগেও ব্রডের অ্যা’জমার সম’স্যার কথা জানতেন না অনেকেই। খবরটা সামনে আসে মজার এক ঘ’টনার পর। অ্যাশেজ সিরিজের প্রাক-প্রস্তুতি ক্যাম্পে ইংল্যান্ড দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়কে নিজের স’ম্পর্কে একটা অজানা তথ্য প্র’কাশ করতে বলা হয়েছিল।

সেখানেই ব্রড তার গো’পন ত’থ্যটি সামনে আনেন। সেই সময়ের কথা তুলতে গিয়ে ইংলিশ এই পেসার বলেন, ‘আমি আমার অ’র্ধেক ফু’সফু’সের কথা বলতেই সবাই হ’তভ’ম্ব হয়ে গিয়েছিল। তিন মাস আগেই জন্ম নেওয়ার কারণেই আমার এই সম’স্যা।’

১৪ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে অবশ্য এর জন্য কখনই বড় স’মস্যায় পড়েননি ব্রড। তবে জ’ন্মের সময় বড় ধরনের শ’ঙ্কা ছিল। ব্রড বলেন, ‘আমি মূলত মৃ’ত্যুর দরজা থেকেই ফিরেছি। আমার ফু’সফু’সের অ’র্ধেক অংশ কখনোই ‘পু’রোপুরি কা’র্যকর হয়নি।

সে কারণেই আমি অ্যা’জমাতে ভু’গি এবং সব সময় ইন’হেলার ব্যবহার করতে হয়। তবে এটা ঠিক, এর কারণে আমার ক্রিকেটার হয়ে উঠতে কখনও স’মস্যা হয়ে দেখা দেয়নি। তবে এটা যে কারও জন্যই চমকে যাওয়ার মতো তথ্য।’