প’শু জ’বাইয়ের সময় যে ভুল করলে কু’রবানি হয় না

প’শু কু’রবানি করা মহান আল্লাহর হুকুম। যা সা’মর্থবানদের ওপর ও’য়াজিব। অনেকেই প’শু জ’বাইয়ের সময় সামান্য একটি ভু’ল করে থাকেন।

যে ভু’লের কারণে প’শু কু’রবানি না হয়ে তা হ’ত্যায় প’রিণত হয়। সব কু’রবানি দা’তাদের জন্য বিষয়টি জেনে নেয়া অ’ত্যন্ত জরুরি। আর তাহলো-

প’শু জ’বাইয়ের পর ১০/১৫ মিনিট সময় বাঁ’চাতে গিয়ে অনেকেই এ সামান্য ভু’লটি করে থাকেন। সমাজে প’শু জ’বাইয়ের একটি প্রচ’লিত বিষয় হলো- প’শু জ’বাইয়ের পর ধারালো ছুড়ির আগা দিয়ে জ’বেহের স্থা’নে (মে’রুদণ্ডে) আ’ঘাত করা। এ কাজটি কো’নোভাবেই ঠিক নয়।

কারণ, প’শুর জ’বাইয়ের স্থা’নে আ’ঘাত করলে সে প’শু স্বা’ভাবিকভাবে ম’রে না বরং ওই আ’ঘাতে গ’রু হা’র্ট অ্যা’টাকে মা’রা যায়। যা প’শু জ’বাইয়ের সঠিক প’দ্ধতি নয়।

ওই আ’ঘাতে যদি কোনো গরু হা’র্ট অ্যা’টাক করে মা’রা যায়, তবে তা দিয়ে কু’রবানি আদায় হবে না। এ ছোট্ট ভু’লটির কারণে অনেক সময় মানুষের কু’রবানি বরবাদ হয়ে যায়।

চি’কিৎসা বি’জ্ঞানের আলোকে এ কাজের ক্ষ’তি ও অ’পকারিতা: পশু জ’বেহের যে স্থানে তী’ক্ষ্ণ ছু’ড়ি ঢু’কিয়ে দেয়া হয়, সেটি মূলতঃ ‘মে’রুর’জ্জু বা স্পা’ইনাল ক’র্ড’-এর অংশ। ছুড়ির আ’ঘাতে প’শুর স্পা’ইনাল ক’র্ড বি’চ্ছিন্ন হয়ে গেলেই প’শুর দেহ থেকে ম’স্তিষ্কের যো’গাযোগ বি’চ্ছিন্ন হয়ে যায়। ফলে প’শুটি হা’র্ট অ্যা’টাক করে এবং মা’রা যায়। তখন এটি জ’বাই সা’ব্যস্ত না হয়ে হ’ত্যায় প’রিগ’ণিত হয়।

চি’কিৎসা বি’জ্ঞানের দৃ’ষ্টিতেও প’শু জ’বাইয়ের এ প’দ্ধতিটি অ’ত্যন্ত গ’র্হিত এবং বি’পদজনক কাজ। কেননা স্পা’ইনাল ক’র্ডের সং’যোগ বি’চ্ছিন্ন হয়ে গেলে সব র’ক্ত প’শুর দে’হ থেকে বের হতে পারে না। প’শুর দেহের মাং’শপেশিতেই র’ক্ত জ’মাট বেঁধে যায় এবং গোশত দূ’ষিত হয়ে পরে।

কুরবানি করা পশুর এ দু’ষিত গোশত খেলে অনেক সময় ক্যা’ন্সার, এ’ইচবিএএ’সসহ অ’ন্তত ১৮ ধরনের জ”টিল রো’গের সৃ’ষ্টি হওয়ার প্রবল স’ম্ভাবনা থাকে। তাই সঠিক পদ্ধ’তিতে কু’রবানি ও স্বা’ভাবিক জবাই স’ম্পন্ন করা জরুরি।

প’শু জ’বাই করার সঠিক প’দ্ধতি:কু’রবা’নির প’শুসহ যে কোনো প’শু জ’বাই স’ম্পন্ন হওয়ার জন্য প’শুর মূল ৩টি র’গ কে’টে দিতে হয়। ৩টি র’গ কে’টে দেয়া হলে প’শুর দে’হ থেকে সব র’ক্ত বের হয়ে যায়। র’ক্ত বের হয়ে যাওয়ার ফলে প’শু স্বা’ভাবিক প্র’ক্রিয়ায় মা’রা যায়। আর এভাবে প’শু জ’বাই করা উত্ত’ম। যাতে কু’রবানি বা জ’বাই বা’তিল হওয়ার কোনো স’ম্ভাবনা থাকে না।

সুতরাং নিরাপদ ও বি’শুদ্ধ কু’রবানি আদায় করতে প’শু কুর’বানি বা স্বা’ভাবিক জ’বাইয়ের পর প’শুর দে’হ থেকে র’ক্ত বের হওয়া পরিমাণ সময় অপেক্ষা করা জরুরি। তাতে কু’রবানি হবে বি’শুদ্ধ। আর কু’রবানি প’শুর গো’শতও হবে খাওয়ার উ’পযুক্ত এবং ঝুঁ’কিমু’ক্ত।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে সঠিক উপায়ে কু’রবানি করার তাওফিক দান করুন। প’শুকে অ’তিরিক্ত ক’ষ্ট দেয়া থেকে বি’রত থাকার তাওফিক দান করুন। যাবতীয় ক্ষ’তি ও রো’গ-বা’লাই থেকে হে’ফাজত করুন। আমিন।