দুই বছরের জন্য নি’ষিদ্ধ হলেন বাংলাদেশী পেসার

ডো’প টে’স্টে প’জিটিভ প্র’মাণিত হওয়ায় দুই বছরের জন্য নি’ষিদ্ধ হয়েছেন ২১ বছর বয়সী বাংলাদেশি পেসার কাজী অনিক। অ’পরাধ স্বী’কার করে নিয়ে দুই বছরের নি’ষেধাজ্ঞা মেনে নিয়েছেন বাঁহাতি এ পেসার।

এক সংবাদ বি’জ্ঞপ্তিতে মা’দক বি’রোধী নিয়ম ভ’ঙ্গের অ’ভিযোগে তাকে নি’ষিদ্ধ করার বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

রবিবার (২৬ জুলাই) রাতে এক সংবাদ বি’জ্ঞপ্তিতে বিসিবি জানায়, মেথামফেটামিন নামক এক ধরনের ওষুধ সেবনের মাধ্যমে বিসিবির এন্টি ডো’পিং কোডের ৮.৩ নম্বর ধারা ভ’ঙ্গ করেছেন কাজী অনিক।

তার বি’রুদ্ধে আসা অ’ভিযোগ স্বী’কারও করেছেন। আগামী দুই বছর নি’ষেধাজ্ঞার কারণে কোনো ধরনের ক্রিকেটীয় ক’র্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারবেন না তিনি৷

২০১৮ সালের ৬ নভেম্বর কক্সবাজারে ডো’প টে’স্ট করা হয় ঢাকা মেট্রোর হয়ে ঐসময় জাতীয় লিগে খেলতে থাকা কাজী অনিকের। তার সেই ফলাফল প’জিটিভ আসে। ২০১৯ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে তার শা’স্তির মে’য়াদ কা’র্যকর ধরা হচ্ছে। ২০২১ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি মাঠে ফিরতে পারবেন তিনি।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ আসরের প্লে’য়ার ড্রা’ফট শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে ঘো’ষণা দেয়া হয়, ড্রাফট থেকে অনিকের নাম প্র’ত্যাহার করা হয়েছে। কিন্তু ঠিক কী কারণে তাকে বাদ দেয়া হলো তা তা’ৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে পরবর্তীতে জানা যায়, ডো’প টে’স্টে ফেঁ’সে যাওয়ার গু’রুতর অ’ভিযোগ উঠেছে তার বি’রুদ্ধে।

সম্ভাবনাময় এই পেসার উ’জ্জ্বল ভবিষ্যতের শুরুতেই ডো’প কে’লেঙ্কা’রিতে জ’ড়িয়ে তার ক্যারিয়ারে দা’গ লাগালেন। এখন পর্যন্ত ৪টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ, ২৬টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ এবং ৯ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন এ পেসার। বিপিএলের বিগত আস’রগুলোতে চি’টাগং ভাইকিংস, রাজশাহী কিংস ও ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলেছেন তিনি। এছাড়া জাতীয় লিগে ঢাকা মেট্রো এবং ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে মোহামেডানের হয়ে খেলেছেন কাজী অনিক।