প্র’তারনা করেছি, ব্যবসা চালু হলে টাকা ফেরত দিয়ে দিবো: সাহেদ

রি’জেন্ট গ্রু’প ও রি’জেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মোহাম্মদ সাহেদ রি’মান্ড শু’নানি চলাকালে বি’চারককে বলেন, ‘স্যার আমি অ’পরাধ,প্র’তারনা যা করেছি। ব্যবসা চালু হলে আ’স্তে আ’স্তে সবার টাকা ফেরত দিয়ে দিবো।’

রোববার (২৬ জুলাই) ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরির আদালতে রি’মান্ড শুনানি চলাকালে বি’চারক জানতে চাইলে এসব কথা বলেন সাহেদ।

সাহেদ বলেন, ‘আমি ও মাসুদ দুইজনই অ’পরাধী। আমার বি’রুদ্ধে মা’মলার রি’মান্ড শু’নানি ঈদের পর হলে ভালো হয়। কয়দিন ধরে রি’মান্ডে আছি। আমি অ’সুস্থ।’

আজ চার মা’মলায় সাহেদের সাত দিন করে ২৮ দিনের রি’মান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। একই প্র’তিষ্ঠানের ব্যব’স্থাপনা পরিচালক (এমডি) মাসুদ পারভেজের তিন মা’মলায় সাত দিন করে ২১ দিনের রি’মান্ড ম’ঞ্জুর করেন আদালত।

সাহেদ উত্তরা পশ্চিম থানার প্র’তারণার মা’মলায় ১০ দিনের রি’মান্ড শেষে আ’দালতে হাজির করা হয়। এসময় আইনজীবী জা’মিন চান। ঢাকা মহানগর পাবলিক প্রসিকি’উটর আব্দুল্লা আবু তার জা’মিনের বি’রোধিতা করে বলেন, ‘সাহেব মানুষের জীবন নিয়ে প্র’তা’রণা করেছেন। সে একজন মহা প্র’তারক। আমরা তার জা’মিনের বিরো’ধিতা করছি।’

এরপর চার মা’মলার রি’মান্ড শু’নানি অনুষ্ঠিত হয়। রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসু’লি আব্দুল্লাহ আবু বলেন, শাহেদ প্র’তারক। সে মানুষের সাথে প্র’তারণা করেছে। চার মা’মলায় ৪০ দিনের রি’মান্ড নেওয়া প্রয়োজন।