উত্তেজনার মধ্যে সৌদি যুবরাজকে যে বার্তা দিলেন পুতিন

ইউক্রেনে হামলা নিয়ে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে কথা বলেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা রাশিয়ার অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব ফেলেছে। এমন পরিস্থিতিতে এই কথোপকথন একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূরাজনৈতিক জোট গঠনের ইঙ্গিত দিচ্ছে বলে ব্লুমবার্গ শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

পুতিন-সালমানের ফোনালাপের ব্যাপারে ক্রেমলিন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তাদের ওই আলোচনায় পুতিন বৈশ্বিক জ্বালানি সরবরাহ ইস্যুতে রাজনীতির অগ্রহণযোগ্যতার ওপর জোর দিয়েছেন।

এছাড়া আলোচনায় ‘রাশিয়া-সৌদি অংশীদারিত্বের আরও ব্যাপক উন্নয়নে পারস্পরিক স্বার্থের’ ওপর জোর দেওয়া হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে ক্রেমলিন।

ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে পুতিনের বিশেষ সামরিক অভিযান ঘোষণা গত এক দশকের মধ্যে রাশিয়াকে অর্থনীতিকভাবে সবচেয়ে বেশি বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে। রাশিয়ার অনেক ব্যাংকই বৈশ্বিক আর্থিক ব্যবস্থা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে এবং ব্যবসায়ীরা রাশিয়ার সঙ্গে লেনদেনে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছে।

তবে সৌদি আরব এবং রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন ওপেক প্লাস বুধবারের বৈঠকে এই ক্রমবর্ধমান সংকটকে মূলত উপেক্ষা করেছে। তবে ওপেক প্লাস অপরিশোধিত দাম কমাতে উত্পাদন বাড়ানোর জন্য ক্রমবর্ধমান চাপের মধ্যে রয়েছে। এই পদক্ষেপ মস্কো এবং রিয়াদের মধ্যে সম্ভাব্য উত্তেজনা তৈরি করতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। jugantor