পুতিনের কঠিন হুঙ্কার : রাশিয়ার হাতে এমন অস্ত্র রয়েছে যা পৃথিবীতে নজিরবিহীন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন। ইউক্রেনের বিভিন্ন সামরিক লক্ষ্যে হামলা করা হয়েছে।বিবিসির প্রতিবেদক জানান, বৃহস্পতিবার ভোর পাঁচটার কিছু পরেই ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে প্রথম বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। চার-পাঁচটি বিষ্ফোরণের শব্দ হয়।

বিছিন্ন এবং দূর থেকে আসা। পরপরই কয়েকটি। সবচেয়ে সাম্প্রতিকটি ছিল কাছাকাছি। তবে এখনও শহরের কেন্দ্রে নয়।একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিমানবন্দরে হামলা হয়ে থাকতে পারে। বিদেশি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কাজ করা একজন সরকারি কর্মকর্তা বলেছেন, বিমানঘাঁটি ও সামরিক সদর দপ্তরে হামলা চালানো হয়েছে।

রাশিয়ার ‘মাতৃভূমির রক্ষক’ দিবস উপলক্ষে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রুশ সেনাবাহিনীর কাছে এমন অস্ত্র রয়েছে যা পৃথিবীর আর কারও কাছে নেই। বুধবার এক বার্তায় তিনি বলেন, বর্তমানে রুশ সেনাবাহিনী এমন অস্ত্রে সজ্জিত যেটার অস্তিত্ব এর আগে পৃথিবীতে ছিল না এবং এ ধরণের অস্ত্র পৃথিবীর আর কোনো দেশের কাছে নেই।

দেশটিতে প্রতি বছর ২৩ ফেব্রুয়ারি ‘মাতৃভূমির রক্ষক’ দিবস পালিত হয়। এ উপলক্ষে এক বার্তায় পুতিন আরও বলেন, রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তার সরকার সব সময় চেষ্টা করে যাচ্ছে। জনগণের শান্তি ও নিরাপত্তাকে সরকার সবচেয়ে গুরুত্ব দিচ্ছে।

রাশিয়া হাইপারসোনিক অস্ত্রসহ নতুন প্রযুক্তির যুদ্ধ সরঞ্জাম নির্মাণের কাজ এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেন পুতিন। তারা ডিজিটাল প্রযুক্তি ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে নতুন নতুন অস্ত্র তৈরির কাজ করছেন। তার মতে, এসব অস্ত্র সেদেশের প্রতিরক্ষা সক্ষমতাকে কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিচ্ছে।

পুতিন বলেন, গত কয়েক বছরে রুশ বাহিনী অনেক বেশি প্রশিক্ষিত, অভিজ্ঞ ও সুশৃঙ্খল হয়ে উঠেছে। সিরিয়া যুদ্ধে রুশ বাহিনী প্রমাণ করেছে সবচেয়ে কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলার সক্ষমতাও তাদের রয়েছে।