সার্চ কমিটি সময় বাড়ালো > মির্জা ফকরুল উত্তরে যা বললেন?

নির্বাচন কমিশন গঠনে নাম জমা দেওয়ার সময় আরও এক দিন বাড়িয়ে দিলেও বিএনপি তাতে সাড়া দেবে না। অনুসন্ধান কমিটিতে নাম জমা না দিতে বিএনপির অবস্থানের কথা আজ সোমবার সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ রোববার বিশিষ্টজনদের সঙ্গে বৈঠকের শুরুতে নাম জমা না দেওয়া রাজনৈতিক দলগুলোকে আরও এক দিন সময় দেওয়ার বিষয়ে কথা বলেন অনুসন্ধান কমিটির সভাপতি বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। তিনি রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য আরও এক দিন সময় বাড়িয়ে বিএনপির কাছেও নাম চান।

অনুসন্ধান কমিটি ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নাম জমা দিতে রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে সময় বেঁধে দেয়। এ সময় আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টিসহ ২৪টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল নামের সুপারিশ করেছে।

অনুসন্ধান কমিটির প্রধান ওবায়দুল হাসানের কথা অনুযায়ী, এখন ৩৯টি নিবন্ধিত দলের মধ্যে বাকি ১৫টি সোমবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত নাম প্রস্তাবের সুযোগ পাবে। তাই বিএনপি চাইলে সিইসি ও নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তাদের নাম প্রস্তাব করতে পারবে।

আজ বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বলেন, ‘মধ্যে শুধু রাজনৈতিক দল, যারা এখনো নাম জমা দেয়নি, যেমন বলাই যায় বিএনপি, সিপিবি বা বাসদ, যারা এখনো জমা দেয়নি, তারা কাল বিকেল পাঁচটার মধ্যে নাম জমা দিতে পারবে।’

এ প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল প্রথম আলোকে বলেন, ‘এমন কোনো প্রস্তাবের কথা শুনিনি। আমাদের কাছে লিখিত কিছু আসেনি। তবে এলেও নাম জমা দেওয়ার কোনো কারণ নেই। এটা একটা প্রহসন।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, এই অনুসন্ধান কমিটির সঙ্গে জনগণের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এটা সরকারের ইচ্ছাতেই হচ্ছে। সেখানে নাম জমা দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

এর আগে একইভাবে নাম জমা দেওয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, এ ধরনের প্রস্তাব একটা মশকরা। শাসক দল চুরির ফন্দি করার জন্য অনুসন্ধান কমিটি করেছে।

যারা ক্ষমতার এবং এ থেকে পাওয়া উচ্ছিষ্ট ভোগ করতে চায়, তারাই সেখানে যাবে। জনগণের পক্ষের কেউ যাবে না। সেখানে নাম জমা দেওয়ার প্রশ্নই আসে না।

উৎসঃ প্রথমআলো